অস্ট্রেলিয়া ও ক্রোয়েশিয়ায় খেলা অভিজ্ঞ সেন্টার ব্যাক টমিস্লাভ এসসি ইস্টবেঙ্গলে

রক্ষণ বিভাগকে শক্তিশালী করে তোলার জন্য অস্ট্রেলিয়ার দীর্ঘদেহী ডিফেন্ডার টমিস্লাভ মরসেলাকে আসন্ন মরশুমের জন্য চুক্তিবদ্ধ করল এসসি ইস্টবেঙ্গল। অস্ট্রেলিয়ার এ লিগে পারথ্ গ্লোরির নির্ভরযোগ্য ডিফেন্ডার ছিলেন তিনি। এ বার লাল-হলুদ জার্সি গায়ে তাঁকে দেখা যাবে এসসি ইস্টবেঙ্গলের রক্ষণ সামলাতে। মঙ্গলবার ক্লাবের পক্ষ থেকে এই খবর ঘোষণা করা হয়।   

এ লিগ ক্লাব পারথ্ গ্লোরিতে দু’বছরের চুক্তিতে তিনি যোগ দেন ২০১৮-য় । ছ’ফুট চার ইঞ্চি উচ্চতার এই ডিফেন্ডার দলকে এ লিগ প্রিমিয়ারশিপ জিততে সাহায্য করেন। পারথে জন্ম হলেও টমিস্লাভ বড় হয়েছেন ক্রোয়েশিয়ায়। ২০০১-এ আরএনকে স্প্লিটের যুব অ্যাকাডেমি থেকে ফুটবলজীবন শুরু তাঁর। আট বছর সেখানে কাটানোর পরে ক্রোয়েশিয়ার তৃতীয় ডিভিশন ক্লাব জাদরান কাস্তেলে সই করেন। ২০১০-এ ফের দলবদল করে যান এনকে প্রিমোরাক ১৯২৯-এ।

তবে সবার নজর কাড়েন এনকে ইমতস্কি ক্লাবে যোগ দিয়ে, যেখানে তিনি নিয়মিত প্রথম এগারোয় থাকতেন। তখন মাত্র ২০ বছর বয়স তাঁর। এই ক্লাবে এক মরশুম ও পরের মরশুমে এনকে মোসোরের হয়ে ধারাবাহিক পারফরম্যান্স দেখানোর পরে বড় সুযোগ আসে তাঁর কাছে। ২০১৩-য় ক্রোয়েশিয়ার শীর্ষস্থানীয় ক্লাব এনকে হ্রভাতস্কি দ্রাগোভোলিজাক থেকে ডাক আসে তাঁর কাছে। জাগ্রেভের এনকে লোকোমোতিভার হয়েও খেলেছেন টমিস্লাভ।

দক্ষিণ কোরিয়ার ক্লাব ফুটবলেও খেলেছেন তিনি। খেলতেন জিওন্নাম ড্রাগনের হয়ে। ২০১৮-য় জন্মভূমিতে ফিরে আসেন পারথ্ গ্লোরির ডাকে। ২০১৮-র বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে খেলার জন্য অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় দলেও ডাক পান তিনি।

ভারতের অন্যতম ঐতিহ্যবাহী ক্লাবে যোগ দিয়ে খুশি এই ৩০ বছর বয়সি এই অভিজ্ঞ ডিফেন্ডার বলেছেন, “আমার কয়েকজন বন্ধু ভারতে খেলেছে, তাদের কাছ থেকেই এই ক্লাব সম্পর্কে অনেক ভাল ভাল কথা শুনেছি। তাই এই দলে যোগ দিতে পেরে আমি খুশি। শুনেছি এ দেশের ফুটবলে বেশ বড় ক্লাব”।

আসন্ন মরশুম নিয়ে টমিস্লাভ বলেন, “দলের রক্ষণে নিজের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগানোর চেষ্টা করব। লকার রুমে ভাল পরিবেশ বজায় রাখাও হবে আমার কাজ। দলের পরিবেশ ভাল থাকাটা খুবই জরুরি। এখানকার সমর্থকদের সীমাহীন আবেগের কথাও অনেক শুনেছি। কিন্তু দুর্ভাগ্য যে, তারা গ্যালারিতে বসে আমাদের জন্য গলা ফাটাতে পারবে না। আমরা তো ওদের জন্যই খেলি। ওদের খুশি করার জন্য সব কিছুই করার চেষ্টা করব। কবে মরশুম শুরু হবে, এখন সেই অপেক্ষায় রয়েছি”।

আসন্ন মরশুমের জন্য ১৭ জন ভারতীয় ফুটবলারের নাম ঘোষণা করেছে এসসি ইস্টবেঙ্গল। তাঁরা হলেন গোলকিপার অরিন্দম ভট্টাচার্য, ডিফেন্ডার আদিল খান, স্যারিনিও ফার্নান্ডেজ, রাজু গায়কোয়াড়, হীরা মন্ডল, জয়নার লরেন্সো, অঙ্কিত মুখার্জি, ড্যানিয়েল গোমস, মিডফিল্ডার অমরজিৎ সিং কিয়াম, জ্যাকিচন্দ সিং, রোমিও ফার্নান্ডেজ, সৌরভ দাস, সংপু সিঙসিট, লালরিনলিয়ানা হামতে এবং স্ট্রাইকার শুভ ঘোষ, নাওরেম মহেশ সিং ও থঙখোসিম সেম্বয় হাওকিপ।

এ বার বিদেশি ফুটবলারদের নামও ঘোষণা করা শুরু হয়েছে। এই তালিকায় প্রথম নাম ছিল স্লোভেনিয়ান মিডফিল্ডার আমির দার্ভিসেভিচ। এ বার যোগ দিলেন সেন্টার ব্যাক টমিস্লাভ মরসেলা।

সম্প্রতি দলের নতুন কোচের নামও ঘোষণা করেছে এসসি ইস্টবেঙ্গল। লিভারপুলের কিংবদন্তি ফুটবলার রবি ফাউলারের জায়গায় নতুন কোচ হিসেবে যোগ দিচ্ছেন স্পেনের হোসে মানুয়েল ‘মানোলো’ ডিয়াজ ফার্নান্ডেজ। রিয়াল মাদ্রিদের যুব ও রিজার্ভ দল-সহ বিভিন্ন ক্লাবে ২০ বছর ধরে কোচের দায়িত্ব পালন করে আসা ডিয়াজ এ বার এসসি ইস্টবেঙ্গল দলের প্রধান কোচের দায়িত্বে।

আসন্ন হিরো আইএসএলে এসসি ইস্টবেঙ্গল প্রথম ম্যাচ খেলতে নামছে ২১ নভেম্বর জামশেদপুর এফসি-র বিরুদ্ধে। এর পরেই ২৭ নভেম্বর এটিকে মোহনবাগানের বিরুদ্ধে কলকাতা ডার্বি খেলতে নামবে তারা।

Your Comments

Your Comments