ফতোরদার মহাম্যাচকে সেরার তকমা দিয়ে ফুটবলারদের ওপর চাপ বাড়াতে নারাজ দুই কোচই

সোমবার ফতোরদা স্টেডিয়ামে চলতি হিরো আইএসএলের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ও উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচে মূলত দুই স্প্যানিশ কোচের কৌশলের লড়াই। কার কৌশল কাকে টেক্কা দেবে, তা বোঝা যাবে সোমবার রাতে, ম্যাচের পরে। এই মুহূর্তে এই ম্যাচকে লিগের সেরা লড়াইয়ের তকমা দেওয়া হলেও দুই দলের কোচই কিন্তু এই ম্যাচকে বাড়তি গুরুত্ব দিতে চান না। দু’জনেই তাঁদের দলের ফুটবলারদের আর পাঁচটা ম্যাচের মতোই মনোনিবেশ করার পরামর্শ দিয়েছেন। বাড়তি চাপ নিক তাঁদের দলে ছেলেরা, তা চান না আন্তোনিও লোপেজ হাবাস ও সের্খিও লোবেরা।

ফুটবল বিশেষজ্ঞ ও ফুটবলপ্রেমীদের ধারণা, লড়াইটা হবে মূলত এটিকে মোহনবাগানের দুর্ভেদ্য ডিফেন্সের সঙ্গে মুম্বই সিটি এফসি-র আগ্রাসী আক্রমণের। কারণ, এ পর্যন্ত লিগে সবচেয়ে বেশি (১৬) গোল করেছে মুম্বই। সবচেয়ে কম (৩) গোল খেয়েছে এটিকে মোহনবাগান। এই দুই দলই এখন লিগ টেবলের শীর্ষে। এক নম্বরে মুম্বই ও দুইয়ে হাবাস-বাহিনী। সেই জন্যই এমন সম্ভাবনার কথা ভাবছেন অনেকে। তবে এমন সম্ভাবনা কার্যত উড়িয়েই দিচ্ছেন সবুজ মেরুন বাহিনীর প্রধান কোচ হাবাস।

তিনি বলছেন অন্য কথা। “আমার মনে হয় না, মুম্বই শুধু আক্রমণই করে। গতিময় ফুটবল ও কাউন্টার অ্যাটাক নির্ভর খেলা ওদের বৈশিষ্ট। ওদের আটকানো বেশ কঠিন। কারণ, ওরা বল নিয়ে বেশির ভাগ সময়ই সামনের দিকে এগোয়। তাই বলে এই লড়াইটা ওদের অ্যাটাকের সঙ্গে আমাদের ডিফেন্সের, এটা আমি মানতে রাজি নই। ফুটবল মানেই আক্রমণ ও রক্ষণ। দুই দলকেই কাল একদিক থেকে আর একদিকে উঠতে দেখা যাবে”, ধারণা হাবাসের।

রবিবার এই গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচের আগের দিন ভার্চুয়াল সাংবাদিক বৈঠকে এই ব্যাখ্যা দিয়ে তিনি মন্তব্য করেন, “ম্যাচের গুরুত্ব নির্ভর করে পরিস্থিতির ওপর। এখন এই ম্যাচটা লিগ তালিকার প্রথম ও দ্বিতীয় দলের মধ্যে। দু-তিন সপ্তাহ পরে হয়তো এই ম্যাচটার আর এরকম গুরুত্ব থাকবে না। তিন পয়েন্ট পাওয়ার জন্য আমরা যে ভাবে খেলি, সে ভাবেই খেলব কাল”।

হিরো আইএসএলের সবচেয়ে সফল কোচ মনে করেন, এখন দুই দলের যা অবস্থান, তার প্রতিফলন যে লিগের শেষ পর্যন্ত পড়বে, এমন কোনও নিশ্চয়তা নেই। এর ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে অভিজ্ঞ স্প্যানিশ কোচ বলেন, “আইএসএলে আমার প্রথম মরশুমে এটিকে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল। দ্বিতীয় মরশুমে হয়তো আমরা তার চেয়ে ভাল পারফরম্যান্স করেছিলাম। তা সত্ত্বেও কিন্তু পরের বার খেতাব জিততে পারিনি”।

প্রথম মরশুমে ১৯ পয়েন্ট নিয়ে লিগ শেষ করেছিল হাবাসের দল। পরের মরশুমে সমসংখ্যক ম্যাচ খেলে ২৩ পয়েন্ট অর্জন করে তারা। সেই পরিসংখ্যান তুলে ধরেই এই ব্যাখ্যা দেন তিনি। অর্থাৎ, তিনি বলতে চান, অতীতের সাফল্য বা ব্যর্থতার কথা ভেবে ভবিষ্যতে কী হতে পারে, সেই সম্পর্কে কোনও আগাম ধারণা করা উচিত নয়।

এটিকে মোহনবাগান কোচ যখন বিপক্ষ শিবিরে বিশেষ কোনও তকমা সেঁটে দিতে রাজি নন, তেমনই এই ম্যাচকে বাড়তি গুরুত্ব দিতেও রাজি নন মুম্বই সিটি এফসি-র সফল কোচ সের্খিও লোবেরা। গত আট ম্যাচে অপরাজিত থাকা মুম্বই সিটি এফসি-র গর্বিত কোচ চান, তাঁর দলের ছেলেরা যেন প্রতি ম্যাচের মতো এই ম্যাচেও কোনও ভাবে ফোকাস না হারায়।

লোবেরাও লিগ টেবলে দুই দলের অবস্থানকে বেশি গুরুত্ব দিতে রাজি নন। সাংবাদিকদের এ দিন বলেন, “ম্যাচটা গুরুত্বপূর্ণ, কিন্তু মারাত্মক কিছু নয়। এখনও টুর্নামেন্টের অর্ধেকেরও বেশি খেলা বাকি। খুব কম সময়ে অনেক কিছু বদলে যেতে পারে। কখনও কখনও সাত দিনে তিনটে ম্যাচ খেলতে হচ্ছে। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হল নিজেদের উন্নতির ওপর ফোকাসটা বজায় রাখা”। তবে লোবেরা স্বীকার করেন, “কালকের ম্যাচটা অবশ্য আমাদের কাছে বড় পরীক্ষা। খুব ভাল একটা দলের বিরুদ্ধে তিন পয়েন্ট অর্জন করার পরীক্ষা”।

বেঙ্গালুরু এফসি-র বিরুদ্ধে গত ম্যাচে লাল কার্ড দেখায় সোমবারের মাঠে নামতে পারবেন না তাঁর দলের নির্ভরযোগ্য মরোক্কান তারকা আহমেদ জাহু। তবে সে জন্য খুব একটা চিন্তিত মনে হল না লোবেরাকে। বলেন, “জাহু আমাদের দলের গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়। তবে আমার কাছে দলই আসল। কোনও একজন বা দু’জনকে বেশি গুরুত্ব দিই না আমি। আমাদের দল হিসেবে মাঠে নামতে হবে। শুধু জাহু বা (মুর্তাদা) ফলকে নিয়ে ভাবলে চলবে না। কোচ হিসেবে পুরো দলের সঙ্গে কাজ করাটাই আমার কর্তব্য”।

গতবার এফসি গোয়াকে লিগের সেরা হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে দিয়ে মাঝপথেই দেশে ফিরে গিয়েছিলেন লোবেরা। তবে এ বার অন্য স্টাইলে মুম্বইকে খেলাচ্ছেন বলে জানান তিনি। বলেন, “জাহু, ফল, হুগো বুমুস, মান্দার রাও দেশাই, যারা আগেও আমার প্রশিক্ষণে খেলেছে, তাদের নিয়ে আমি এ বার একটু অন্য স্টাইলে খেলার চেষ্টা করছি। তার ফলে আমরা ভাল উন্নতিও করছি। শুধু ফল বা লিগ টেবলে অবস্থানের ক্ষেত্রে নয়, আমাদের খেলার পদ্ধতিতে। এই বিশেষ পরিস্থিতিতে, একটা বিশেষ মরশুমে আমাদের আরও উন্নতি করে যেতে হবে”। সোমবার এই নতুন স্টাইলের ফুটবলে এটিকে মোহনবাগানকে সামলাতে পারেন কি না তিনি, সেটাই দেখার।

Your Comments

Your Comments